Sunday, November 9, 2014



মণিদি কে,


রাত একটায় হঠাত একছত্র লিখছি তোমায় একটা ছবি ভেসে উঠলো জানো ! অনেকগুলো কথা মণিদিদি। তোমার ভিতরে আস্ত একটা গভীর নীল সমুদ্র আছে, তোমাকে তাতে ডুব দিতে হবে। বিয়ের দশ বছর পর ও তুমি যাকে খুঁজে চলেছ, একটা আস্ত মানুষ যে তোমাকে ঘরের আর একটা আসবাব ভাববে না, তোমাকে জানিয়ে আর কারুর কাছে রাত কাটিয়ে আসবে না, আর একটা মানুষ ভাববে, তার জন্য তোমায় ডুব দিতে হবে মণিদিদি ধীরে ধীরে দিনের পর দিন ধরে।তুমি শুধু চুপ থেকো, সে গভীরতা share করলে তুমি ডুব দিতে পারবে না, বারে বারে ভেসে উঠবে। তোমার মুখের দিকে সারা জীবন তাকিয়ে থাকবে যে, সে facebook এ নেই, সে chat করে না, সে ছবি এঁকে post করে না, সে show off করে না, সে ভিড়ের মধ্যে ধূলোমাটি, তাকে বুঝতে গেলে তার পাশে চুপটি করে বসে ওর  ছবিতে রঙ আর তুলির টান দেখো, ওইখানে ওর আস্ত জীবনের গল্প আছে। সে শুরুতেই গল্পের বুনোটে বাঁধবে না তোমায়, আর তুমিও  কিছু বোলো না, বললে সুর কেটে যাবে। ওর exhibition ওর বন্ধ ঘরে আছে, ওর কথা কাউকে বলে না, তুমি শুধু তোমার আঁচল বিছিয়ে চুপটি করে জেগে থাকবে, ও তখন ই আস্ত একটা পৃথিবী চেনাবে তোমায়। তার কোলে মাথা রেখে আগামী একশত বছরের স্বপ্ন পাবে, তুমি শুধু চুপ থেকো আর তার খোঁজে ডুব দিও। আর defend করতে হবে না, আর যুদ্ধ কোরো না নিজের সাথে। একমাত্র সেই তোমার মুখের দিকে চিরকাল তাকিয়ে থাকবে।
 বুঝে না বুঝে অনেকগুলো কথা বলে ফেললাম ক্ষমা করে দিও।

                                                                                                                           ইতি